ঢাকারবিবার, ১৯শে মে ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
ঢাকারবিবার, ১৯শে মে ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. অর্থনীতি
  3. আইসিটি
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আফ্রিকা
  6. ইসলাম
  7. এশিয়া
  8. কলাম
  9. ক্রিকেট
  10. খেলা
  11. চাকরী
  12. জাতীয়
  13. জেলা
  14. জেলা সংবাদ
  15. নিয়োগ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

আ.লীগের কার বিরুদ্ধে অ্যাকশনে যাব,মতবিনিময় সভায়: শরীয়তপুরের পুলিশ সুপার

admin
এপ্রিল ২৯, ২০২৩ ৪:০৭ অপরাহ্ণ
Link Copied!

জাজিরা সময় অনলাইন ডেস্ক

শরীয়তপুরের গোসাইরহাট উপজেলার নাগেরপাড়া ইউনিয়নের আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় শরীয়তপুরের

পুলিশ সুপারকে (এসপি) আরও কঠোর ভূমিকা পালনের অনুরোধ করেছেন এলাকাবাসী। তবে বিবদমান দুই পক্ষ আওয়ামী লীগের হওয়ায় অসহায়ত্ব প্রকাশ করেছেন এসপি মো. সাইফুল হক।

আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে নাগেরপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের দুটি গ্রুপের সংঘর্ষ, পাল্টাপাল্টি মামলা ও গতকাল শুক্রবার ব্যাগভর্তি ২৪টি তাজা বোমা উদ্ধারের ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে আজ শনিবার মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শাহজাহান শিকদারের সভাপতিত্বে দুপুর সাড়ে ১২টায়

নাগেরপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ হলরুমে অনুষ্ঠিত হয় মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন এসপি। সেখানেই তিনি তাঁর অসহায়ত্বের কথা বলেন।

এসপি উপস্থিত সবার উদ্দেশে বলেন, ‘শুধু পুলিশের ওপর নির্ভর করলে হবে না যে পুলিশ আসবে, দেখবে, কাজ করবে আর সব সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে। যার যার জায়গা থেকে আপনাদের নিজেদেরও দায়দায়িত্ব রয়েছে। আওয়ামী লীগের সভাপতির যেমন দায়িত্ব রয়েছে, ইউপির চেয়ারম্যানের দায়িত্ব রয়েছে, তেমনি সবারই কোনো না কোনো দায়িত্ব রয়েছে। এলাকার আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। বিএনপি হলে তাদের থামানো যেত, কিন্তু এখানে দুই গ্রুপই আওয়ামী লীগের। কার বিরুদ্ধে অ্যাকশনে যাব?’

এ সময় উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শাহজাহান শিকদার বলেন, ‘আগে কোদালপুর ইউনিয়ন নিয়ে চিন্তা ছিল, কিন্তু এখন আমার নিজ ইউনিয়ন নাগেরপাড়াকে নিয়ে আতঙ্কিত থাকতে হচ্ছে। তিন জেলার সংযোগস্থল হওয়ায় বহিরাগতরা এখানে এসে বিশৃঙ্খলা তৈরি করছে। এসব বিষয়ে এসপি সাহেবকে আরও কঠোর হওয়ার অনুরোধ করছি। আন্তজেলা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর যৌথ তৎপরতা বাড়ানো উচিত।

নাগেরপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক বলেন, ‘নির্বাচনে পরাজিত হয়ে আমার প্রতিপক্ষের সব প্রার্থী এক জোট হয়ে আমার ও পরিষদবর্গের বিরুদ্ধে হামলা-মামলা চালাচ্ছে। যেকোনো সময় তারা আমাকে মেরে ফেলতে পারে। আমি এসপি মহোদয়সহ থানা-পুলিশের সবাইকে আরও কঠোর ভূমিকা পালনের অনুরোধ করছি।’

মতবিনিময় সভায় মুক্তিযোদ্ধা, জনপ্রতিনিধি, শিক্ষক, ব্যবসায়ী, সাংবাদিক, রাজনৈতিক ব্যক্তিরাসহ স্থানীয়রা উপস্থিত ছিলেন। পরে গতকাল বোমা উদ্ধারের স্থান পরিদর্শন করেন পুলিশ সুপার।

উল্লেখ্য, গতকাল বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে চারটি ব্যাগভর্তি তাজা ২৪টি বোমা উদ্ধার করা হয়। গোসাইরহাট উপজেলার নাগেরপাড়া ইউনিয়নের দক্ষিণ বড় কাচনা এলাকার শাহ আলম মৃধার বাড়ির পূর্ব পাশে ও ছায়েদুল সরদারের বাড়ির পশ্চিম পাশে পরিত্যক্ত অবস্থায় বোমাগুলো উদ্ধার করে পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয়দের ধারণা, ১০ এপ্রিল পার্শ্ববর্তী বরিশালের মুলাদী থানার বালিয়াতলী গ্রামে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে সৃষ্ট সংঘর্ষে ব্যবহারের জন্য ককটেলগুলো আনা হয়েছিল। ওই সংঘর্ষে দুজন নিহত হন।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।