ঢাকামঙ্গলবার, ২১শে মে ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
ঢাকামঙ্গলবার, ২১শে মে ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. অর্থনীতি
  3. আইসিটি
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আফ্রিকা
  6. ইসলাম
  7. এশিয়া
  8. কলাম
  9. ক্রিকেট
  10. খেলা
  11. চাকরী
  12. জাতীয়
  13. জেলা
  14. জেলা সংবাদ
  15. নিয়োগ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

রাজশাহীর বাঘায় বাবাকে হত্যার দায়ে ছেলে আটক

আবুল হাশেম, রাজশাহী বিভাগীয় প্রতিনিধি
আগস্ট ৯, ২০২৩ ১১:২৭ অপরাহ্ণ
Link Copied!

রাজশাহীর বাঘায় এক বৃদ্ধ পিতাকে হত্যার দায়ে পলাতক ছেলে শুকুর আলীকে গ্রেফতার করেছে বাঘা থানা পুলিশ। এক দিন পার না হতেই, বাঘা থানার চৌকস পুলিশ অফিসার মোবাইল ট্যাকিং এর মাধ্যমে তাকে আটক করেছেন। আসামী শুকুর আলীকে আটক করার পর হত্যার দায় স্বীকার করে।

তাদের পরিবারে সূত্রে জানা য়ায়, সোমবার(৭-আগষ্ট)দিবাগত রাতে বাঘা উপজেলার মনিগ্রাম ইউনিয়নের হরিরামপুর পাকারপাড়া গ্রামে নিজ বাড়িতে মেহগোনির গাছ বিক্রী ও জমি জমা সংক্রান্ত বিবাদের জের ধরে বৃদ্ধ পিতা রুস্তম আলী (৭০)কে নির্মম ভাবে লাঠির আঘাত ও হাসুয়া দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে পালিয়ে যায় তার ঘাতক সন্তান শুকুর আলী (৩৫)। খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য রামেক হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগে প্রেরণ করেন।

এদিকে ঘটনার মাত্র ২৪ ঘন্টার মধ্যে মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১১ টার সময় বাঘা থানার ওসি খাইরুল ইসলাম এর নেতৃত্বে একদল সঙ্গীয় পুলিশ ঘাতক শুকুর আলীকে মীরগঞ্জ এলাকা থেকে আটক করে থানায় নিয়ে আসেন।

বাঘা থানা অফিসার ইনচার্জ(ওসি) খাইরুল ইসলাম জানান, একজন সন্তান কর্তৃক তার পিতা খুন হবে এটা অত্যান্ত দু:খ জনক ঘটনা। আমি খবরটি পেয়ে ঘটনাস্থলে যাই এবং বিষয়টি তদন্ত করে দেখি। ঘটনার পরেই তার ছেলে শুকুর আলী পালিয়ে য়ায়। মোবাইল ট্যাকিং সহ বিভিন্ন সোর্স মাধ্যমে আমরা তাকে খুজতে থাকি। সকালে সে ঢাকার পথে রওনা হয়েছিল। তবে রাতে সে পুনরায় পাশের গ্রাম মীরগঞ্জে ফিরে আসে। সেখানে অভিযান চালিয়ে আমরা তাকে আটক করি। সে আমাদের কাছে পিতাকে হত্যার দায় স্বীকার করেছে। তাকে আজ বুধবার দুপুরে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।