ঢাকাশুক্রবার, ২৪শে মে ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
ঢাকাশুক্রবার, ২৪শে মে ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. অর্থনীতি
  3. আইসিটি
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আফ্রিকা
  6. ইসলাম
  7. এশিয়া
  8. কলাম
  9. ক্রিকেট
  10. খেলা
  11. চাকরী
  12. জাতীয়
  13. জেলা
  14. জেলা সংবাদ
  15. নিয়োগ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

পাহাড়ি ফুল ঝাড়ু যাচ্ছে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে

আবুবকর ছিদ্দীক বান্দরবান
ফেব্রুয়ারি ৪, ২০২৪ ১২:৪৩ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

বান্দরবান জেলার সদর উপজেলার অর্থনীতির কেন্দ্রবিন্দু কলা বাজার ও মারমা বাজার সম্প্রতি এই এলাকায় গিয়ে দেখা যায় সুদূর রোয়াংছড়ি,রুমা,ও থানচিসহ বান্দরবানের বিভিন্ন পাহাড়ি এলাকা থেকে গাড়িতে ওনৌযোগে আসছে সারি সারি ফুল ঝাড়ু।গাড়ি থেকে এসব ফুল ঝাড়ুগুলো সারি সারি করে নামিয়ে রাখছে এই দুই বাজারে। পাহাড়ের উৎপাদিত এসব ফুলের ঝাড়ুর কদর রয়েছে সারা দেশ জুড়ে। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, এসব ফুলের ঝাড়ু দেশের বিভিন্ন প্রান্তে পৌঁছাতে ব্যস্ত সময় পার করছে শ্রমিকরা।

ফুলের ঝাড়ু পরিবহনে দীর্ঘ ১৫ বছর ধরে কাজ করছে স্থানীয় শ্রমিক হাশেম। তার সাথে কথা বলে জানা যায়, প্রতিবছরই তিনি এই মৌসুমে ফুলের ঝাড়ু পরিবহনে কাজ করে আসছে। দৈনিক ৫শত টাকা মজুরিতে পাইকার ব্যবসায়ীদের মাধ্যমে ফুলের ঝাড়ু ট্রাক থেকে নামান পরে বেপারীরা কিনলে তা অন্য ট্রাকে উঠানোর কাজে সহযোগিতা করেন তিনি। এইভাবে প্রায় প্রতিদিনই তিনি কাজ করছেন, তবে সপ্তাহের রবিবার ও বুধবার সাপ্তাহিক হাটে ব্যস্ততা একটু বেশি থাকে। ওইসময় তিনি ভোর থেকে শুরু করে রাত পর্যন্ত ঝাড়ু সরবারহ কাজে সময় দিয়ে থাকেন। ওইসময় বাড়তি আয় হয় তার। এরকম স্থানীয় বেশ কয়েকজন শ্রমিক প্রায় দীর্ঘ কয়েক বছর ধরে ঝাড়ু সরবারহ করার কাজ করে সংসার চালান বলে জানান।

এদিকে ফুল ঝাড়ু বিক্রয় করতে মারমা বাজারে আসা রোয়াংছড়ির বাসিন্দা সুইসাপ্রু মারমাসহ বেশ কয়েকজন বিক্রেতা জানান, পাহাড়ে প্রাকৃতিকভাবে ফোটা এই ফুলের ১০ থেকে ১৫টি দিয়ে আঁটি বেঁধে ঝাড়ু বানানো হয়। সেই ঝাড়ু স্থানীয় বাজারে বিক্রি হয় ১০ থেকে ১৫ টাকায়। বেশ কয়েকবছর ধরে তারা এই ফুল ঝাড়ু বিক্রয় করে ভালো লাভ পাচ্ছেন।

চট্টগ্রাম শহরের বহাদ্দারহাট থেকে আসা ফারুকুল ইসলাম নামে এক পাইকারি ফুল ঝাড়ু ক্রেতা জানান, পাহাড়ের ফুল ঝাড়ুর কদরের কথা শুনে তিনিও আজ বেশ কয়েক বছর ধরে বান্দরবানের এই বাজার থেকে ঝাড়ু ক্রয় করে আসছেন। তিনি জানান, প্রতি ট্রাকে প্রায় দুই হাজার বান্ডেল ফুল ঝাড়ু পরিবহন করা যায়। এছাড়া প্রতি বান্ডেল ১ থেকে ২ হাজার টাকা ক্রয় করে থাকেন। পাশাপাশি সেগুলো শহরে নিয়ে খুচরা বাজারে বিক্রয় করে প্রায় অর্ধ লক্ষাধিক টাকা আয় হয় তার।

বান্দরবান সদরের কলা বাজার ও মারমা বাজার হতে ঢাকা, চট্টগ্রাম শহরের বিভিন্ন প্রান্তে দীর্ঘ কয়েক বছর ধরে ফুল ঝাড়ু পৌঁছে দিচ্ছেন ট্রাক চালক ইলিয়াছ, রহমান আলী সহ বেশ কয়েকজন। তাদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, বান্দরবানের সাথে সরাসরি শহরে যোগাযোগ ব্যবস্থা ভালো হওয়াতে অনেকটা কম পরিশ্রম ও স্বল্প মূল্যে এসব ফুল ঝাড়ু গন্তব্যে পৌঁছানো সম্ভব হয়। পাশাপাশি বান্দরবানের সড়কে নিরাপত্তা পরিস্থিতির উন্নতির ফলে অনেক ঝামেলা থেকে রক্ষা পাওয়া যায়। তবে বেশ কয়েকজন চালক জানান, জ্বালানী তেলের মূল্য বৃদ্ধিতে বর্তমানে পরিবহন ব্যয় অনেকটা বেড়ে গেছে। যার ফলে বর্তমানে অতিরিক্ত ব্যয় বহন করতে হিমশিম খেতে হচ্ছে তাদের।
প্রতিবছরের এই মৌসুমে দুর্গম রোয়াংছড়ি,রুমা এবং থানচি বিভিন্ন দুর্গম পাহাড়ি এলাকা থেকে এসব ফুল ঝাড়ু দেশের বিভিন্ন প্রান্তে সরবরাহ করা হয়ে থাকে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।